অ্যান্ড্রয়েডর জন্য ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস (পর্ব-২)

অ্যান্ড্রয়েডর জন্য ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস (পর্ব-২)

পর্ব-২ : অ্যান্ড্রয়েডর জন্য ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস, আমার সেই সকল বন্ধুদের জন্য যারা মিউজিক শুনতে অনেক ভালোবাসে। আর বন্ধুরা স্মার্টফোন মানুষের জীবনযাত্রায় বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা করে দিয়েছে তা তো আমরা সবাই জানি। যেমন পূর্বে যেখানে ফোন দিয়ে শুধুমাত্র কথা বলা ও টুকটাক এসএমএস পাঠানো যেত। সেখানে এখন স্মার্টফোন আসার পর মোবাইলে এখন অনেক কিছুই করা সম্ভব। বিশেষ করে ছবি তোলা, অডিও ভিডিও করা, গান শোনা, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, এইচডি গেমইং সহ আরো অনেক কাজ এখন স্মার্টফোনেই সেরে নেওয়া যায়। তবে আর যাই হোক স্মার্টফোনে মিউজিক আমরা কম বেশি সবাই শুনে থাকি। আর এই মিউজিক প্লেয়ারের স্বাদ নেওয়ার জন্য রয়েছে অ্যান্ড্রয়েডের নিজস্ব মিউজিক প্লেয়ার এবং গুগলের গুগোল প্লে মিউজিক অ্যাপটি।

আজ দ্বিতীয় বারের মতো আপনাদের জন্য নিয়ে আসলাম অ্যান্ড্রয়েডর জন্য ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস। আর এটি হলো পর্ব ২ এবং আমি পূূর্বের পোস্টে অ্যান্ড্রয়েডর জন্য ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস (পর্ব-১) এ আরও জনপ্রিয় ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস নিয়ে আলোচনা করেছি। এবং তারই সুবাদে আজকে আপনাদের জন্য এর দ্বিতীয় পর্ব নিয়ে আসলাম। আর আশকরি এই দুইটি পর্ব পড়ার পড়ে বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস  নিয়ে আপনাদের আর অন্য কোথাও খুজতে হবে না আপনার শুধু এই পর্ব-১পর্ব-২ দেখলে চলবে। তো চলুন আর বকবক না করে আজকের মুল টপিক অ্যান্ড্রয়েডর জন্য ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস দেখে নেওয়া যাক।

সেরা ৭: ব্ল্যাকপ্লেয়ার - BlackPlayer

ব্ল্যাকপ্লেয়ার নিঃসন্দেহে অ্যান্ড্রয়েডের অন্যতম সেরা মিউজিক প্লেয়ার যা অনেকগুলি ফিচার নিয়ে আসে। এটি একটি কাস্টমাইজযোগ্য ইউজার ইন্টারফেসের (UI) সাথে ডিজাইন করা হয়েছে যা সোয়াইপ এবং অঙ্গভঙ্গি (Gestures) দ্বারা সম্পূর্ণরূপে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। আপনি ব্ল্যাকপ্লেয়ারের UI এর রং ও ফন্ট পরিবর্তন করতে পারেন।

এছাড়াও, ব্ল্যাকপ্লেয়ার উইজেটস, গ্যাপলেস প্লেব্যাক, ID3 ট্যাগ এডিটর, স্লিপ টাইমার, ইকুয়ালাইজার, স্ক্রবলিংক, থিম পরিবর্তন এবং আরও অনেক কিছুর সাথে করতে পারেন। এটি MP3, WAV, OGG, FLAC, M4A এর মতো আরো অনেক লোকাল মিউজিক ফাইল ফর্ম্যাটকেও সাপোর্ট করে।

শুধু তাই নয়, এর আরো একটি ভালো দিক হলো ব্ল্যাকপ্লেয়ার অ্যাপটি বিজ্ঞাপন-মুক্ত। এই মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপটি ব্যাবহারের সময় কোনো বিজ্ঞাপন আপনাকে জালাতন করবে না। এছাড়াও ব্ল্যাকপ্লেয়ার প্লে স্টোরে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আপনি ডাউনলোড করতে পারেন। এর ফ্রী ভার্সন ও পেইড ভার্সনের মধ্যে সামান্য পার্থক্য রয়েছে। এটি এমন একটি মিউজিক প্লেয়ার যা আপনার অবশ্যই ব্যবহার করা উচিত ৷

ব্ল্যাকপ্লেয়ারের বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • 5-ব্যান্ড ইকুয়ালাইজারের সাথে বাস বুস্টার, 3D সারাউন্ড ভার্চুয়ালাইজার এবং এমপ্লিফায়ার রয়েছে।
  • অ্যান্ড্রয়েড অটো এবং WearOS সাপোর্ট করে।
  • এম্বেড করা গানের লিরিকস দেখতে এবং এডিট করতে পারেন।
  • সিঙ্ক্রোনাইজড করা .lrc ফাইলগুল সাপোর্ট করে।
Download BlackPlayer Music Player

সেরা 6: ফোনোগ্রাফ - Phonograph

ফনোগ্রাফ নতুন সঙ্গীত প্লেয়ার অ্যাপ্লিকেশানগুলির মধ্যে একটি। ফোনোগ্রাফ একটি ঝরঝরে দৃষ্টি আকর্ষণীয় অ্যাপ্লিকেশন। এই প্লেয়ারটির থিম ইঞ্জিন আপনাকে নিজের পছন্দমতো কাস্টমাইজড করতে দেয়। এই অ্যাপটি কেবল এর সুন্দর দেখতে ডিজাইনের জন্য সবার পছন্দের নয়। এর পেছনে থাকা ফিচার গুলির জন্য এটি সবার মনে জায়গা করে নিয়েছে।

ফোনোগ্রাফ স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার মিডিয়া সম্পর্কে অনুপস্থিত তথ্য ডাউনলোড করে। এই প্লেয়ারের ট্যাগ এডিটর আপনাকে শিরোনাম, একক গানের জন্য শিল্পী বা পুরো অ্যালবামের মতো ট্যাগগুলি সহজেই এডিটিং করতে দেয়। এটি সাধারন ভাবে গঠিত , লাইটওয়েট এবং ব্যবহার করা সহজ ৷ অধিকাংশ ক্ষেত্রে, এটি সফল। এটির ইন্টারফেস মেটারিয়াল নকশা করা যা আপনাকে একটি ভাল দর্শন এবং অনুভব প্রদান করবে।

ফোনোগ্রাফের অন্যান্য বৈশিষ্ট্য যেমন লক স্ক্রিন নিয়ন্ত্রণ, ফাঁকবিহীন প্লেব্যাক এবং স্লিপ টাইমার রয়েছে। এছাড়াও এর ফ্রী ভার্সন ও প্রিমিয়াম ভার্সন রয়েছে।

ফোনোগ্রাফের বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • লাইব্রেরী অ্যালবাম, শিল্পী এবং প্লেলিস্টগুলিতে শ্রেণিবদ্ধকরণ।
  • বিস্তৃত কাস্টমাইজেশনের জন্য ইনবিল্ট থিম ইঞ্জিন ।
  • ট্র্যাকগুলি সম্পর্কে অতিরিক্ত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য Last.fm সংহতকরণ।
Download Phonograph Music Player

সেরা ৫: মিউজিকলেট - Musicolet

মিউজিকলেট হলো একটি বিজ্ঞাপন-মুক্ত, লাইটওয়েট মিউজিক প্লেয়ার যা প্রচুর ফিচার যুক্ত। এটি আপনাকে ইয়ারফোন বোতামটি ব্যবহার করে আপনার সঙ্গীত প্লেয়ারকে নিয়ন্ত্রণ করতে দেয়; পুশ / প্লের  করার জন্য একক ক্লিক, ডাবল ক্লিক পরের ট্র্যাকটি খেলবে এবং ট্রিপল-ক্লিক আপনাকে পূর্ববর্তী গানে নিয়ে যাবে। এছাড়াও, আপনি ৪ বা ততোধিক বারবার ক্লিক দিয়ে গানটি দ্রুত-ফরওয়ার্ড করতে পারেন। এটি অ্যান্ড্রয়েডের জন্য একমাত্র সঙ্গীত প্লেয়ার অ্যাপ্লিকেশন হিসাবে দাবি করে যা একাধিক প্লে করার সারিগুলিকে সমর্থন করে। ফোল্ডার, অ্যালবাম, শিল্পী এবং প্লেলিস্টগুলির জন্য সহজেই ট্যাবগুলি অ্যাক্সেস সহ মিউজিকলেটের একটি স্বজ্ঞাত জিইউআই (GUI) রয়েছে।

তদুপরি, এটিতে একটি ইক্যুয়ালাইজার, লিরিক সাপোর্ট, ট্যাগ এডিটিং, স্লিপ টাইমার, উইজেট এবং আরও অনেক কিছু রয়েছে। এটি কার্যকারিতার দিক থেকে ২০২০ এ ব্যবহার করা সেরা অ্যান্ড্রয়েড মিউজিক প্লেয়ারগুলির মধ্যে একটি এবং একটি অতুলনীয় অভিজ্ঞতা সরবরাহ করে।

মিউজিকলেট এর বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • মাল্টি-কিউ ম্যানেজার এবং ২০ টিরও বেশি কিউ বা সারি সেট করার বিকল্প। 
  • একাধিক গানের অ্যালবাম-আর্ট এডিটিং করার জন্য ট্যাগ এডিটর। 
  • ইয়ারফোন সহ উন্নত মিউজিক বা সংগীত নিয়ন্ত্রণ।
  • অ্যান্ড্রয়েড অটো সাপোর্ট করে।
Download Musicolet Music Player

সেরা ৪: যেটঅডিও - jetAudio

jetAudio দীর্ঘ সময় ধরে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের প্রিয় অ্যাপের স্থান দখল করে রয়েছে কারণ এর মাঝে অন্যর থেকে ভাল হওয়ার মত যথেষ্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে৷ এছাড়াও এই অ্যান্ড্রয়েড মিউজিক প্লেয়ারের ফ্রী এবং প্রিমিয়াম উভয় ভার্সন সরবরাহ করে। তবে, ফ্রী ভার্সনে অনেকগুলো ফিচার দেওয়ার জন্য, বেশিরভাগ ব্যবহারকারীদের আপগ্রেড করার প্রয়োজন হবে না। তবে ফ্রী ভার্সনে সমস্যা হলো এখানে আপনি বিজ্ঞান দেখতে পারেন। আর অনেকে কাছে একটি বিরক্তিকর। এছাড়াও রয়েছে ট্যাগ এডিটর, উইজেট এবং এমআইডিআই (MIDI) প্লেব্যাক। এত কিছুর পরও অ্যাপটি ব্যবহার অনেক সহজ।

যেটঅডিও এর বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • ৩২ টি প্রিসেটের সাথে উন্নত 10-ব্যান্ড ইক্যুয়ালাইজার।
  • ক্ষতিকারক এবং ক্ষতিহীন সাপোর্ট।
  • রিভারব এবং এক্স-বাসের মতো সাধারন ইফেক্ট।
  • প্লেব্যাক গতি নিয়ন্ত্রণের সাথে স্বয়ংক্রিয় লাভ নিয়ন্ত্রণ।
Download jetAudio Music Player

সেরা ৩: এন7প্লেয়ার - n7player

এন7প্লেয়ার এমন একটি মিউজিক প্লেয়ার যা কিছুটা আলাদা হতে চেষ্টা করেছে এবং সফল হয়েছে ৷ গান বিভিন্ন তালিকা অনুসারে সাজানোর পরিবর্তে, এন7প্লেয়ার আপনার গানগুলোর একটি বড় Collage style তালিকা তৈরি করে, যা আপনি স্ক্রোল করতে পারবেন এবং শুনতে পারবেন ৷ এর মিডিয়া লাইব্রেরিতে গ্রাফিকাল উন্নতির মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ভিউয়ের মধ্যে যে কোনও গানের সন্ধান করতে পারেন।

এন7প্লেয়ার মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপ ফাঁকবিহীন প্লেব্যাক, বেস বুস্ট এবং সাউন্ড ভার্চুয়ালাইজেশন প্রভাব, ট্যাগ এডিটিং, থিমস, স্লিপ টাইমার, উইজেট এবং আরও অনেক কিছুর মতো রোমাঞ্চকর বৈশিষ্ট্যগুলির সাথে আসে।

ফ্রি ভার্সনটি ১৪ দিনের জন্য কেবল পরীক্ষামূলক ভার্সন হিসাবে, এর সমস্ত বৈশিষ্ট্য উপভোগ করতে পারবেন। এরপর আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে সর্বনিম্ন টাকায় সম্পূর্ণ ভার্সনটি কিনতে পারবেন। যাইহোক, যদি আপনি এমন কিছু চান যা অসাধারণ দেখতে হবে। তবে এর কাছাকাছি অন্য কোন মিউজিক প্লেয়ার নেই ।

এন7প্লেয়ারের বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • একাধিক প্রিসেটের সাথে উন্নত 10-ব্যান্ড ইক্যুয়ালাইজার।
  • লক স্ক্রিন উইজেট এবং অ্যাপ্লিকেশন থিমের কাস্টমাইজেশন।
  • ক্রোমকাস্ট / এয়ারপ্লে / ডিএনএলএ (DNLA) সাপোর্ট করে।
Download n7player Music Player

সেরা ২: প্লেয়ারপ্রো - PlayerPro

প্লেয়ারপ্রো মিউজিক প্লেয়ার একটি কম জনপ্রিয় মিউজিক প্লেয়ার যার কিনা অধিক জনপ্রিয়তা পাওয়া উচিত। এটি সুন্দর একটি ইন্টারফেস সহ একটি পর্দা (screen) প্রদান করে যা সবকিছু ব্যবহার সহজ করে তোলে এবং মিউজিক প্লেয়ারটিকে আরো স্বনির্ভর করতে আপনি বিভিন্ন জিনিস ডাউনলোড এবং ইনস্টল করতে পারবেন ৷

এছাড়াও আপনি এর দ্বারা ভিডিও প্লে করতে পাবেন। এর মধ্যে ইকুয়ালাইজার, বিভিন্ন ধরনের অডিও ইফেক্ট, উইজেট এবং কিছু মজার ক্ষুদ্র বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যেমন: ফোনকে ঝাকিয়ে গানের ট্রাকগুলো পরিবর্তন করা। এটি এমনকি হাই-ফাই মিউজিক ও সাপোর্ট করে।

অন্য অ্যাপসগুলোর মতো এটিও ফ্রী ভার্সন ও প্রিমিয়াম ভার্সন রয়েছে। আপনি চাইলে অ্যাপ্লিকেশনটি ডেমো হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন / $4.99 দিয়ে ক্রয় করতে পারেন ৷

প্লেয়ারপ্রো এর বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • 5-ব্যান্ড ইকুয়ালাইজার।
  • হাই-ফাই মিউজিক সাপোর্ট (32-বিট, 384 kHz) পর্যন্ত।
  • বিভিন্ন ধরনের অডিও ইফেক্ট এবং উইজেট।
Download PlayerPro Music Player

সেরা ১: পাওয়ারএএমপি - PowerAMP (বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপসের তালিকায় শীর্ষে)

অ্যান্ড্রয়েডের সেরা মিউজিক প্লেয়ারের কথা বললে সবার আগে নাম আছে পাওয়ারএএমপি মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপের। পাওয়ারএএমপি মিউজিক প্লেয়ার অ্যান্ড্রয়েডের সবথেকে জনপ্রিয় ও বহুল ব্যবহৃত মিউজিক প্লেয়ার। শুধু জনপ্রিয় বললে ভুল হবে, এটার কাছে অন্যান্য মিউজিক প্লেয়ারের কোন পাত্তাই নেই ।

এই প্লেয়ারে রয়েছে চমৎকার ইউজার ইন্টারফেস এবং ইকুয়ালাইজার, মিউজিক স্ক্রিণে গানের লিরিক্স যোগ করার ফিচার সহ বেশ আকর্ষণীয় কয়েকটি ফিচার রয়েছে এতে। বিভিন্ন অডিও ফরম্যাট প্লে করতে পারবে এই অ্যাপটি।

পাওয়ারএএমপি মিউজিক প্লেয়ারের রয়েছে একটি মসৃণ ইন্টারফেস যা আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে পারেন। এর মাঝে অনেক গুলো প্লে ব্যাক ফিচার রয়েছে, যার ভিতর অন্তর্ভুক্ত পরিসরহীন প্লেব্যাক, ক্রসফ্যাড, উইজেট, ট্যাগ এডিটিং, এবং আরো কাস্টমাইজেশন সেটিংস খুঁজে পাবেন। এছাড়াও নিজের মতো করে থিম কাস্টমাইজেশনের সুবিধা তো থাকছেই।

পাওয়ারএএমপির বিশেষ বৈশিষ্ট্য

  • কখনও শেষ না হওয়া ফিচার সহ স্বজ্ঞাত ইন্টারফেস।
  • ক্রোমকাস্ট সাপোর্ট।
  • প্রায় প্রতিটি মিউজিক ফর্মেট সাপোর্ট।
  • বাস এবং ত্রিবাল নিয়ন্ত্রণের জন্য 10-ব্যান্ড ইকুয়ালাইজার।
  • মনো মিক্সিং এবং স্টেরিও এক্সপেনশন মোড।
  • ভিজ্যুয়ালাইজেশন এবং কাস্টম ইউআই।
Download PowerAMP Music Player

শেষ কথা

আপনি যদি সংগীত ভালোবাসেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে একটি মিউজিক প্লেয়ারের সাথে পরিচিত হতে হবে। বেছে নিতে হবে সেই মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপটি যার মাধ্যমে আপনি সহজেই মনের মতাে সাজিয়ে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের প্লে লিস্ট। এখানে গুগল প্লে স্টোরের ৭ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস নিয়ে আলােচনা করা হয়েছে। আর এটিই হচ্ছে সেরা মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপসের পর্ব-২। আর আগের পোস্টে আমি এর পর্ব-১ নিয়ে আপনাদের মাাঝে হাজির হয়েছিলাম।

আমার দেওয়া লেস্টের ১৪ টি বেস্ট মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপসই হলো প্লে স্টোরে থাকা টপ ডাউনলোড ও হাই রেটিং এর অ্যাপস। তাই আর দেরি না করে পর্ব ১পর্ব ২ থেকে ডাউনলােড করে নিন আপনার পছন্দের মিউজিক প্লেয়ারটি। এছাড়াও আমার লিস্টে যুক্ত করা উচিৎ এমন কোনো সেরা মিউজিক প্লেয়ার অ্যাপস সম্পর্কে আপনি যেনে থাকলে বা ব্যাবহার করলে কমেন্ট বক্সের মধ্যে জানাবেন।

আপনি যদি পর্ব-১ না দেখে থাকেন তাহলে এখানে ক্লিক করে দেখে নেওয়ার দাওয়াত রইলো। এ বকম ইন্টারেসটিং এপস সম্পর্কে জানতে ক্লিক লুর নিয়মিত ভিজিট করুন। এতক্ষণ ধরে ধর্য সহকারে পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

মন্তব্যসমূহ

টিউটোরিয়ালটি কেমন লেগেছে মন্তব্য করুন!


The #1 Wapkiz Template Provider

ব্লগ সংরক্ষাণাগার

যোগাযোগ ফর্ম

প্রেরণ